এই ইলেকট্রনিক কাজের গুরুত্বপূর্ণ টুল টির নাম আগে ছিল Circuits.io ২০১২ সালে এর যাত্রা শুরু হয়। ২০১৪ সালের দিকে Circuits.io অটোডেস্কের 123D Apps এ যুক্তহয়। ফলে নাম বদলে Autodesk 123D Circuits হয়ে যায়। অটোডেস্ক স হচ্ছে একটি অনলাইন ভিত্তিক টুল তাই স এ কাজ করার জন্য মোটামুটি উচ্চ গতির ইন্টারনেট দরকার। এর ওয়েবসাইট এড্রেস হচ্ছে https://circuits.io । ওয়েবসাইটটি ওপেন করলে এরকম একটি স্ক্রিন আসবে –

সার্কিটস এর লগিন পেইজ টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) circuits io login page
স এর লগিন পেইজ

উপরে ডানদিকে সাইন ইন ও সাইন আপ এর অপশন আছে। আপনার যদি আগে থেকে একাউন্ট থাকে তাহলে সাইন ইন এ ক্লিক করে লগ ইন করবেন, একাউন্ট না থাকলে সাইন আপ এ গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে নতুন একটি একাউন্ট খুলে নিবেন।

একাউন্ট খোলার পর লগ ইন করলে নিচের মত একটি স্ক্রিন আসবে –

লগিন করার পরে যা আসবে টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 2 2 e1479801347460
লগিন করার পরে যা আসবে

আপনি আগে কোনও ডিজাইন করে থাকলে সেটা রিসেন্ট ডিজাইনসে দেখাবে। Overview এর পাশে Create এ ক্লিক করলে নিচের মত ৩টি অপশন আসবে –

অপশন গুলো যেমন আসবে টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 3 1
অপশন গুলো যেমন আসবে

এ টুল গুলোর মধ্যে ইলেক্ট্রনিক্স ল্যাব হাব টুলটি আমার ফেভারিট। এই টুলটি দিয়ে ব্রেডবোর্ডে বানিয়ে সিমুলেট করা যায়, সার্কিট ডায়াগ্রাম বানানো যায়, পিসিবি বানানো যায় এমনকি ভারচুয়াল তে কোড আপলোড করে সিমুলেটও করা যায়! তাই বোর্ড না কিনেও এ টুলের সাহায্যে শেখা যায়।
PCB Design + Manufacturing টুলটি দিয়ে পিসিবি ডিজাইন করা যায়, অথবা Eagle সফটওয়ারে করা ডিজাইন ইম্পোরট করে সেটা নিয়েও কাজ করা যায়। পিসিবি অর্ডারও করা যায়, তবে বাংলাদেশ থেকে সেটা সম্ভব না।

Circuit Scribe হচ্ছে কন্ডাকটিভ পেন দিয়ে আঁকা সার্কিট ডিজাইন করার একটা টুল, যেহেতু এই টুল বেশিরভাগেরই কোনও কাজে আসবেনা তাই এই টুল নিয়ে আলোচনা করা হবে না।


এই পর্বে আমরা শিখব কিভাবে ইলেকট্রনিক্স ল্যাব টুল টি ব্যবহার করে ব্রেডবোর্ডের কোনও সার্কিট ডিজাইন ও সিমুলেট করা যায় এবং সিমুলেট করা যায়।


ওপেন ইলেক্ট্রনিক্স ল্যাব এ ক্লিক করলে এরকম স্ক্রিন আসবে –

ইলেকট্রনিক্স ল্যাব এ ক্লিক করলে এমন আসবে টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 4 1
ইলেকট্রনিক্স ল্যাব এ ক্লিক করলে এমন আসবে

নিউ ইলেকট্রনিক্স ল্যাব এ ক্লিক করলে নতুন একটি ব্ল্যাংক সার্কিট ডিজাইন ওপেন হবে।

ইন্টারফেস পরিচিতি টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 5 1
ইন্টারফেস পরিচিতি

আমরা প্রথম সার্কিট হিসেবে দিয়ে এলইডি ব্লিঙ্ক করা দেখবো। এজন্য প্রথমে কম্পোনেন্ট এ ক্লিক করে এলইডি এবং উনো অ্যাড করে নেই –

কম্পোনেন্ট কিভাবে এড করতে হয় টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 6 1
কম্পোনেন্ট কিভাবে এড করতে হয়
কম্পোনেন্টের উপরে ক্লিক করলে এড হয়েযাবে টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) 7 1
কম্পোনেন্টের উপরে ক্লিক করলে এড হয়েযাবে

ও এলইডি টেনে সরানো যাবে। এলইডি ব্রেডবোর্ডের ছিদ্রের কাছাকাছি আনলে নিজে থেকেই জায়গামত বসে যাবে।

নিচের এই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে কিভাবে এই অটোডেস্ক ১২৩ সার্কিটস টুল টি দিয়ে ও অন্যান্য কম্পোনেন্ট কে ইচ্ছেমত বসানো যায়-

এলইডির পায়ের উপর কারসর আনলে এনোড না ক্যাথোড সেটা ভেসে উঠবে। ব্রেডবোর্ডের ছিদ্রে ক্লিক করলে সেই পয়েন্ট থেকে একটা জাম্পার ওয়্যার শুরু হবে, মাউস দিয়ে দ্বিতীয়বার যেখানে ক্লিক করা হবে সেই জায়গায় জাম্পার ওয়্যারটি যুক্ত হবে। এখানে এর ১৩ নং পিনের সাথে এলইডির ক্যাথোড আর গ্রাউন্ডের সাথে এনোড লাগানো হল। নিচের এই টুল দিয়ে তৈরী ভিডিও টিউটোরিয়াল টিতে বিস্তারিত দেখুন-

এবার তে কোড আপলোডের পালা। এজন্য প্রথমে নিচের কোডটি কপি করে নেই –

এরপর কোড এডিটর খুলে কোডটি পেস্ট করে আরডুইনোতে কোড আপলোড করি।

কোড আপলোড করে রান করলে সিমুলেশন চালু হবে টুল একটি অসাধারণ অনলাইন ইলেকট্রনিক্স টুলঃ অটোডেস্ক 123D সার্কিটস (পর্ব-১) last e1479852930459
কোড আপলোড করে রান করলে সিমুলেশন চালু হবে

আপলোড ও রান এ ক্লিক করলে সিমুলেশন নিজে থেকেই চালু হবে। এলইডি কোনও

রেজিস্টর ছাড়া আরডুইনোর সাথে কানেক্ট করায় কিছুটা বেশি কারেন্ট যাচ্ছে, যার জন্য এলইডি বেশিক্ষন চললে পুড়ে যেতে পারে, তাই প্রত্যেকবার এলইডি জ্বলার সময় আগুনের মত ওয়ার্নিং সাইন আসছে। এলইডির উপর কারসর নিলে ওয়ার্নিং এর কারণ ভেসে উঠবে। স্টপ সিমুলেশন এ ক্লিক করলে সিমুলেশন থেমে যাবে।

যদিও আমরা খুব সহজ সার্কিট এই অনলাইন টুলটি দিয়ে সিমুলেট করলাম, তবে অনেক জটিল সার্কিটও ইলেকট্রনিক্স ল্যাবে সিমুলেট করা যেতে পারে। টুলটি নিয়ে একটু ঘাঁটাঘাঁটি করে আরও অনেক ফিচার সম্পর্কে জানা যাবে। যেমন, আপনি ইচ্ছা করলে ভার্চুয়াল অসিলোস্কোপ ব্যবহার করে আপনার সার্কিট টেস্ট করতে পারবেন।

আজকের মত এটুকুই। পরের পর্বে আমরা ইলেকট্রনিক্স ল্যাবে সার্কিট ডায়াগ্রাম ডিজাইন সম্পর্কে জানবো।

ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ

কমেন্ট প্রদান