এলডিআর/এলডিয়ার (LDR) পরিচিতি, ব্যবহার ও মজার সার্কিট

এলডিআর/এলডিয়ার () খুব মজার একটি জিনিস। এর বেশ কিছু চমতকার ব্যবহার আছে। হাইফাই অডিও এমপ্লিফায়ার, সিগনাল কম্প্রেশন থেকে শুরু করে মজার মজার প্রজেক্ট ও এর মাধ্যমে তৈরি করা সম্ভব। আজকে এই মজার জিনিস টি নিয়েই লিখছি সাথে থাকছে মজার একটি

পরিচিতি

এলডিআর/এলডিয়ার () কি

এলডিআর/এলডিয়ার () হচ্ছে আলোক নির্ভর রেজিস্ট্যান্স যার উপরে আলো পড়লে আলোর তীব্রতা অনুযায়ী এর রোধ কম বা বেশি হয়।  এর পূর্ণঅর্থ – লাইড ডিপেন্ডেন্ট রেজিস্টর। এর নির্দিষ্ট কোন ভ্যালু থাকেনা। তবে এর সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন ভ্যালু থাকে। এর আরো একটি জনপ্রিয় নাম ফটো রেজিস্টর।

সাধারণত ছোট এলডিআর গুলোর ১ মেগা পর্যন্ত রেজিস্ট্যান্স হয় যেখানে বড় গুলোর রেজিস্ট্যান্স ১০০ কিলো বা এর আশেপাশে হতে পারে। আর সর্বনিম্ন রেজিস্ট্যান্স কয়েক পর্যন্ত হয়ে থাকে।

উল্লেখ্য যে বাজারে দুই ধরণের এলডিআর পাওয়া যায়।

  • ১. আলো পড়লে রেজিস্ট্যান্স কমে
  • ২. আলো পড়লে রেজিস্ট্যান্স বাড়ে

কাজেই এলডিআর কিনে অবশ্যই মিটার দিয়ে পরীক্ষা করে নেয়া উচিৎ এলডিয়ার টি কোন ধরণের।

যেকোন ধরণের এলডিআর কেই এর সংযোগ পদ্ধতি পরিবর্তন করে প্রয়োজন অনুযায়ী কাজ করানো সম্ভব। আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বলছি, সাধারণ রেজিস্টরের মতই এর কোন পোলারিটি নেই। অর্থাৎ এর দুই পা কে উল্টো করে সংযোগ দিলেও কাজ করবে।

এলডিআর দেখতে কেমন

নিচের চিত্রে বিভিন্ন রকমের এলডিআর দেখতে পাচ্ছি-

বিভিন্ন আকৃতির এলডিয়ার/এলডিআর
বিভিন্ন আকৃতির এলডিয়ার/এলডিআর

ইলেক্ট্রনিক্স ডায়াগ্রাম গুলোতে সাধারণত এর চিহ্ন এমন দেখানো হয়-

এলডিয়ার/এলডিআর এর সিম্বল
এলডিয়ার/এলডিআর এর সিম্বল

অর্থাৎ একটি রেজিস্টরের উপরে আলোর আপতিত হচ্ছে এমন। ঐ তীর চিহ্নগুলো দিয়ে আলোক রশ্মি বোঝায়।

কোথায় পাওয়া যায় এলডিআর, দাম কেমন?

ইলেকট্রনিক পার্টস বিক্রি করে এমন প্রায় সব ধরণের দোকানেই এলডিআর পাওয়া যায়। প্রয়োজনে এ করে এর ছবি নিয়ে দোকানদার কে দেখাতে পারেন, অবশ্যই পাবেন। এর দাম মূলত নির্ভর করে এর আকৃতির উপরে। বড় এলডিআর এর দাম বেশি, অপরদিকে ছোট গুলোর দাম কম হয়ে থাকে। ৫-১০ টাকা থেকে শুরু করে ৭০ টাকা পর্যন্তও হয়।

জ্ঞাতব্যঃ কোন ইলেকট্রনিক পার্টসের দাম এলাকা ও বাজার ভেদে ভিন্ন হতে পারে

এলডিআর এর ব্যবহার

এলডিআর দামে সস্তা ও সহজলভ্য হবার কারণে এর প্রচুর ব্যবহার রয়েছে, যেমন-

  • মোটামুটি মানের আলো পরিমাপক যন্ত্রপাতিতে (উন্নত মানের পরিমাপক যন্ত্রে ফটো বা ফটো ব্যবহার করা হয়)
  • আলো নির্ভর সন্ধ্যা বাতি তৈরিতে (/)
  • আলো নির্ভর প্রক্সিমিটি সেন্সর হিসেবে 
  • আলো/লেজার নির্ভর সিকিউরিটি সিস্টেমে
  • আলোক উজ্জ্বলতা নিয়ন্ত্রক ডিভাইস যেমন অটো ব্রাইটনেস কন্ট্রোলার, 
  • লাইন ফলোয়ার রোবট তৈরী করতে
  • আলো নির্ভর মিউজিক্যাল বেল তৈরী করতে, ইত্যাদি।

এলডিআর দিয়ে মজার

নিচে একটি মজার ইলেকট্রনিক সার্কিট নিয়ে সংক্ষিপ্ত ভাবে লিখছি।

অডিও ভলিউম কন্ট্রোল সিস্টেম

আমরা অডিও ভলিউম কন্ট্রোলের জন্য ভেরিয়েবল রেজিস্টরের বহুল ব্যবহার জানি। এর স্বল্প মূল্যের জন্য এটি খুবই সমাদৃত। কিন্তু এর বেশ বড় একটা সমস্যা আছে। সময়ের সাথে সাথে ঘর্ষন জনিত কারণে নয়েজ সৃষ্টি হয়। তখন ভলিউম একটু কমালে বা বাড়ালেই স্পিকারে “খস-খস” শব্দ করে যা গানের শ্রুতি মধুরতা নষ্ট করে।

এ সমস্যা নিরসনের জন্য উন্নতমানের এমপ্লিফায়ার সিস্টেমে সরাসরি এম্প সিস্টেম এর সাথে ভলিউম ব্যবহার করা হয় না। এর পরিবর্তে ব্যবহার করা হয় এলডিআর/এলডিয়ার। খুব দামী এম্প গুলোতে অপটোকাপলার ও ব্যবহার করা হয়। নিচের ডায়াগ্রাম টি এমনি একটি সরল এলডিআর নির্ভর ভলিউম কন্ট্রোলার সিস্টেম-

এলডিআর/এলডিয়ার দিয়ে ভলিউম কন্ট্রোল সিস্টেম
এলডিআর/এলডিয়ার দিয়ে ভলিউম কন্ট্রোল সিস্টেম

কার্যপ্রণালী

সার্কিট টির কার্যপ্রণালী অত্যন্ত সরল, কিন্তু খুবই কার্যকর। সাধারণ ভলিউম কন্ট্রোল দিয়ে একটি লাল এলইডি এর উজ্জ্বলতা কমানো বাড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। লাল এলইডি এর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য বেশি হবার কারণে এলডিয়ার এর রেসপন্স ভালো হয়। মূলত ভলিউম কন্ট্রোল টি এর বায়াসিং কে কাজে লাগিয়ে এলইডি এর উজ্জ্বলতা কম-বেশি করছে। টি ভলিউম ঘোরাবার সময়ে সামান্যতম নয়েজ ও ফিল্টার করে দিচ্ছে ফলে আউটপুটে প্রাপ্ত সিগনাল একদম নিখুঁত পাওয়া যায়।

এখানে বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য যে এলইডি ও এলডিআর কে মুখোমুখি অবস্থানে স্থাপন করতে হবে। সহজ বুদ্ধি হচ্ছে এলইডি কে হটগ্লু দিয়ে এলডিআর এর উপরে লাগিয়ে দেওয়া। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে যেন বাইরের আলো এলডিয়ার এর উপরে না পড়ে।

স্বভাবতই উৎসাহী পাঠক বুঝে নিয়েছেন যে এটিকে একটু পরিবর্তন করলেই ডিজিটাল ভলিউম কন্ট্রোল বানানো সম্ভব। পরের অনুচ্ছেদে তাই নিয়েই লিখছি।

এলডিয়ার দিয়ে ডিজিটাল ভলিউম কন্ট্রোল সিস্টেম

একই ডায়াগ্রামের শুধু ভলিউম আর কিছু আনুষাঙ্গিক পার্টস বাদ দিয়ে একে ডিজিটাল কন্ট্রোলার করে ফেলা যায়। নিচের ডায়গ্রাম টি দেখি-

এলডিয়ার ও পিডব্লুএম সিগনাল দিয়ে ডিজিটাল ভলিউম কন্ট্রোল
এলডিয়ার ও পিডব্লুএম সিগনাল দিয়ে ডিজিটাল ভলিউম কন্ট্রোল

যারা মাইক্রোকন্ট্রোলার নিয়ে কাজ করেন তারা পিডব্লুএম (PWM) সম্পর্কে অবশ্যই অবগত আছেন। একটি নির্দিষ্ট পালস এর স্থায়ীত্ব কমিয়ে বাড়িয়ে আউটপুট নিয়ন্ত্রন করা হয়। এখানেও ঠিক একই কাজ করা হয়েছে।

মাইক্রোকন্ট্রোলার থেকে পিডব্লুএম সিগনাল টি এর বেইজ এ দেয়া হয়েছে। যার ফলে পালস এর স্থায়ীত্বকাল অনুযায়ী এলইডি এর উজ্জ্বলতা কম বেশি হবে। আর এই আলো এলডিয়ার এ পড়বার ফলে সেটির রেজিস্ট্যান্স ও পরিবর্তীত হবে।

প্রয়োজনে ব্যবহার না করে সরাসরি মাইক্রোকন্ট্রোলারে পিন থেকেও এলইডি সংযোগ দেয়া যেতে পারে।

উপরোক্ত দু’টি ডায়াগ্রামই এক চ্যানেলের জন্য। অর্থাৎ স্টেরিও করতে চাইলে একই রকম দুটি সার্কিট তৈরি করতে হবে।

এখানে উল্লেখ থাকে যে অডিও ইন থেকে শুরু করে অডিও আউট পর্যন্ত তার গুলো Shielded audio cable হতে হবে। উন্নত মানের মাইক্রফোন, হেডফোনে যে সমস্ত অডিও ক্যাবল ব্যবহার করা হয় তা ব্যবহার করলেও চলবে। নয়ত স্পিকারে প্রচুর হামিং নয়েজ আসবে। এবং অবশ্যই এলডিআর ও এলইডি কে কালো টেপ দিয়ে মুড়িয়ে দিতে হবে যাতে বাইরের আলো না প্রবেশ করে।

ইন্টারনেটে এধরনের অসংখ্য সার্কিট আছে। একটু খুঁজলেই অনেক ধরণের পাবেন। যেমন-

ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত এলডিয়ার ভলিউম ও গেইন কন্ট্রোল সিস্টেম
ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত এলডিয়ার ভলিউম ও গেইন কন্ট্রোল সিস্টেম

তবে সবগুলো কাজ নাও করতে পারে।

এলইডি ও এলডিআর স্থাপন

এখন গুরুত্বপূর্ণ একটি বিশয়ে বলছি। এলডিয়ার ও এলইডি কে কিভাবে স্থাপন করতে হবে সে সম্পর্কে। নিচের চিত্রটি দেখুন। আশাকরি বুঝতে পারবেন-

এলইডি ও এলডিয়ার/এলডিআর কে এভাবে গায়ে গায়ে লাগিয়ে দিলে ভালো হবে
এলইডি ও এলডিয়ার/এলডিআর কে এভাবে গায়ে গায়ে লাগিয়ে দিলে ভালো হবে

গায়ে গায়ে লাগানোর জন্য হটগ্লু বা সুপারগ্লু জাতীয় আঠা ব্যবহার করতে পারেন। ডানের চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন অনেক গুলো এলডিয়ার কে বড় একটি এলইডি (10mm) এর চারিপাশে লাগানো হয়েছে। মূলত এলডিআর গুলোর সবগুলো পিন কে প্যারালাল করে আউটপুট নেয়ে হয়েছে এখানে। এরফলে এলইডি এর সামান্য আলোও এর রেজিস্ট্যান্স কে কম বেশি করতে পারবে।

**উপরোক্ত সার্কিটে প্রদত্ত সবগুলো এলডিআর এমন যে তাদের উপর আলো পড়লে রোধ কমে। এর উল্টোটা হলে এই সার্কিটে কাজ হবে না।

**আমাদের সাইটে প্রকাশিত এলডিআর সংক্রান্ত অন্যান্য লেখা পাবেন লিংক থেকে

সমাপ্তি

আজকের মত আপাতত এটুকুই। সামনে মজার একটি প্রজেক্ট স্মার্ট ইমার্জেন্সি এলইডি লাইট  এর বিস্তারিত ডায়াগ্রাম ও কার্যপদ্ধতি নিয়ে হাজির হবো। 🙂

ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ
ঘুরে আসুন আমাদের ইলেকট্রনিক্স শপ থেকেঃ

5 টি কমেন্ট

  1. পরবর্তী টিউনে স্মার্ট ইমার্জেন্সি এলইডি লাইট এর
    বিস্তারিত ডায়াগ্রাম ও কার্যপদ্ধতি চাই তাড়াতাড়ি। অপেক্ষা আর পারছি না

  2. ভাই, আমি 12V-40AH lead এসিড ব্যাটারীর (50w সোলারের ব্যাটারী) জন্য অটো কাট-অফ চার্জিং সার্কিট ডায়াগ্রাম এবং পিসিবি বোর্ডে ইকুইপমেন্টের এসেম্বিলি করা ছবি পেতে চাই।

কমেন্ট প্রদান

Please enter your comment!
Please enter your name here