তৈরি করুন সহজ কোড লক সিকিউরিটি সুইচ
তৈরি করুন সহজ কোড লক সিকিউরিটি সুইচ

কোড লক সিকিউরিটি সুইচ আমরা প্রায়ই মুভিতে দেখি। যেখানে নির্দিষ্ট কোড ঢুকানোর পর কোন সুইচ অন হয়। কিংবা সিকিউরিটি লক টি খুলে যায়। কেমন হয় যদি আমরা নিজেরাও তেমন একটি কোড লক সিকিউরিটি সুইচিং সিস্টেম বানাই। আর যদি তা হয় একদম সহজ কিছু ইলেকট্রনিক পার্টস দিয়ে তাহলে তো কথাই নেই। আজকে তেমনি একটি প্রজেক্ট নিয়ে লিখছি।

কোড লক সুইচ কি

এটি এমন একটি ইলেকট্রনিক সিকিউরিটি ডিভাইস যা কিনা আগে থেকে নির্দিষ্ট একটি কোডের মাধ্যমেই কাজ করে বা চালু হয়। উল্টোপাল্ট বা ভুল নাম্বার চাপলে সেটির আউটপুট অন হবে না। ফলে এর আউটপুটে সংযুক্ত কোন লোড কিংবা ম্যাগনেটিক লক খুলবে না বা সিকিউরিটি ডিভাইস টি চালু হবে না।

এখানে উল্লেখ্য যে ইন্টারনেটে এমন অনেক স্কিমেটিক ডিজাইন আছে। জটিল মাইক্রোকন্ট্রোলার থেকে শুরু করে অনেক আইসি সম্বলিত কোড লক ডিভাইস ও দেখা যায়। কিন্তু আমার এটিতে এত জটিলতা নেই। মাত্র কয়েকটি ব্যবহার করেই এটি তৈরি করা হয়েছে। নিচে কিছু অত্যাধুনিক সিকিউরিটি ডিভাইস সিস্টেমের ছবি দেখুন-

অত্যাধুনিক কিছু কোড লক সিস্টেম
অত্যাধুনিক কিছু কোড লক সিস্টেম

স্কিমেটিক ডায়াগ্রাম

আসুন প্রথমেই আমরা এই কোড লকের স্কিমেটিক ডায়াগ্রাম টি দেখি-

কোড লক সিকিউরিটি সুইচের সার্কিট ডায়াগ্রাম
কোড লক সিকিউরিটি সুইচের ডায়াগ্রাম

দেখতেই পাচ্ছেন মাত্র ৪টি BC547  আর কিছু খুব কমন পার্টসের সমন্বয়ে এটি তৈরি করা হয়েছে এই সিকিউরিটি সুইচিং ডিভাইস টি। কিন্তু সহজ দেখালেও এর সুবিধাবলী কিন্তু কম নয়।

সুবিধাবলী

  • পরপর নির্দিষ্ট সুইচ প্রেস করলেই (এখানে 257 সেট করা হয়েছে) একমাত্র আউটপুট চালু হবে। এই পদ্ধতির আরেক নাম সিকোয়েন্সিয়াল কোড লক সিস্টেম
  • ভুল সুইচ প্রেস করবার সাথে সাথেই টি রিসেট হয়ে যাবে। অর্থাৎ, আবার প্রথম সঠিক ডিজিট প্রেস করে পর্যায়ক্রমে পরবর্তি সঠিক ডিজিট প্রেস করলেই একমাত্র এটিকে আনলক করা সম্ভব।
  • প্রতিটি ডিজিট প্রেস করবার মাঝে কিছু নির্দিষ্ট সময় সেট করা আছে। যারফলে কেউ যদি ডিজিট প্রেস করে ভাবতে থাকে এর পরের ডিজিট টি কী হবে ততোক্ষনে টি আবার রিসেট হয়ে যাবে। এই সুবিধাটি অত্যাধুনিক ডিজিটাল লক সিকিউরিটি সিস্টেমে দেখা যায়। কিন্তু সেখানে মাইক্রোকন্ট্রোলার থেকে শুরু করে আর অনেক জটিল যন্ত্রপাতি ব্যবহার হয়।
  • এই কোড লকের নির্মান খরচ ও জটিলতা অনেক কম

কার্যপদ্ধতি

এই সিকিউরিটি কোড সুইচটির জন্য ৩টি টাইমার ব্যবহার করা হয়েছে। প্রতিটি টাইমার কে সিকোয়েন্সিয়াল ভাবে প্রেস করতে হবে। নয়ত কাজ করবে না।

এখানে পরীক্ষামূলক ভাবে 2 5 7 কে আমি ব্যবহার করেছি সিক্রেট কোড হিসেবে।

কেউ যদি 2 ডিজিট ( এ ব্যবহৃত SW1) কে প্রেস করে তখন কিছু পরিমাণ পজেটিভ চার্জ প্রথম টির (Q1) এর বেজে যায় এবং C1 টিকে চার্জিত করে। এরফলে প্রথম টাইমার টি চালু হয় ৩ সেকেন্ডের জন্য। অর্থাৎ 2 ডিজিট কে প্রেস করবার পরে 5 ডিজিট কে প্রেস করবার জন্য একজন সময় পাবে মাত্র ৩ সেকেন্ড।

আপাতদৃষ্টে মনে হতে পারে যে এটি অনেক কম সময়। কিন্তু যে কোড জানে এমন একজনের কাছে এটি যথেষ্ট ২য় ডিজিট বা SW2 প্রেস করবার জন্য।

এরপর 5 ডিজিট কে প্রেস করলে (স্কিমেটিকে SW2 হিসাবে নির্দেশিত) C1 থেকে কিছু পরিমাণ পজেটিভ চার্জ নিয়ে C4 পজেটিভ চার্জে চার্জিত হয়। প্রথম সুইচ প্রেস করবার ঠিক ৩ সেকেন্ডের মধ্যে এই ২য় সুইচ কে প্রেস করলে এলইডি D2 জ্বলে উঠবে ২ সেকেন্ডের জন্য। এটি জ্বলবার অর্থ আপনি প্রায় দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছেন। আর মাত্র ১টি বাটন প্রেস করতে হবে, তাহলেই সিসিম ফাঁক… 😉

7 ডিজিট কে (ডায়াগ্রামে নির্দেশিত SW3) পরবর্তি ৩ সেকেন্ডের মাঝে প্রেস করলে আউটপুট চালু হবে। এটিও মাত্র ১০ সেকেন্ডের জন্য চালু থাকবে। এই ১০ সেকেন্ড কোন দরজার খোলা থেকে শুরু করে ছোট লোড চালু করবার জন্য যথেষ্ট সময়। আর আউটপুট টির কানেকশন দেখে নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন যে এর আউটপুট সিগনাল নেগেটিভ (-V) আসবে।

রিলে চালনা করা

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে এই স্বল্প মাত্রার আউটপুট দিয়ে কী এমন আর করা যাবে। হ্যাঁ তার জন্য আউটপুটে একটি রিলে ড্রাইভার লাগানো যেতে পারে। ফলে কোড লক এর মাধ্যমে রিলে কেও সুইচিং করা সম্ভব হবে। নিচে এই টির জন্য উপযুক্ত রিলে ড্রাইভার এর ডায়াগ্রাম দেয়া হলো-

কোড লক সিকিউরিটি সার্কিটের মাধ্যমে রিলে চালনা
কোড লক সিকিউরিটি সার্কিটের মাধ্যমে রিলে চালনা

একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন

এখন একটি প্রশ্ন হয়ত করতে পারেন যে মাত্র ১০ সেকেন্ডের জন্য কোন লোড চালু করে কী আর এমন কাজ করা যেতে পারে!!

উত্তরটি সহজ, যদি আপনি এটির মাধ্যমে ম্যাগনেটিক লক ব্যবহার করেন তাহলে এই ১০ সেকেন্ড লক টি চালু/অফ থাকবে (সংযোগ অনুযায়ী)। আর কোন লক খোলা দরজা কে ঠেলে খুলতে নিশ্চয়ই ১-২ সেকেন্ডের বেশি সময় লাগবে না! নিচে এমনি একটি ম্যাগনেটিক লক স্থাপিত দরজা দেখানো হলো-

দরজায় লাগানো ম্যাগনেটিক লক সিস্টেম
দরজায় লাগানো ম্যাগনেটিক লক সিস্টেম

কিভাবে কোড পরিবর্তন করবো

সার্কিট টিতে দেখানো কোড পরিবর্তনের জন্য SW1, SW2 এবং SW3 কে নিজের পছন্দ মত নাম্বারের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

যেমন, আমি যদি চাই আমার গোপন নাম্বার হবে  1 6 5 তাহলে –

  • কীপ্যাড এর 1 নাম্বার ডিজিট এর সাথে SW1 কে যুক্ত করতে হবে
  • 6 নাম্বার ডিজিটের সাথে SW2 কে যুক্ত করতে হবে এবং সব শেষে
  • 5 নাম্বার ডিজিটের সাথে SW3 কে সংযুক্ত করে দিলেই কাজ শেষ।

এখন যদি আমি পর্যায়ক্রমে (এবং ৩ সেকেন্ড সময় এর মধ্যে) 1 6 5 প্রেস করি তাহলেই আউটপুট চালু হয়ে যাবে।

আমার তৈরি সার্কিট টি দেখুন

নিচে দেখতে পাচ্ছেন আমার তৈরিকৃত কোড লক সিকিউরিটি ডিভাইসের চিত্র-

আমার তৈরি সিকিউরিটি কোডলক সুইচ সিস্টেম
আমার তৈরি সিকিউরিটি কোডলক সুইচ সিস্টেম

মূলত পোর্টেবল ভার্শন করবার জন্য এটিকে ৯ ভোল্ট ব্যাটারি দ্বারা চালনা করবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এটিকে চাইলে ১২ ভোল্টেও চালনা করা যেতে পারে তবে ৯ ভোল্টই উপযুক্ত।

নিচে দেখতে পাচ্ছেন নষ্ট রিমোট কন্ট্রোলের কীপ্যাড কে এই কাজে ব্যবহার করেছি-

নষ্ট রিমোট কন্ট্রোলের কীপ্যাড এর পুনর্ব্যবহার
নষ্ট রিমোট কন্ট্রোলের কীপ্যাড এর পুনর্ব্যবহার

 

সমাপ্তি

আজকের মত এটুকুই। ভারতের সুদূর আসাম থেকে বাংলাদেশের সকল ইলেকট্রনিক্স প্রেমীদের প্রতি রইলো আমার সশ্রদ্ধ ভালোবাসা। সবাই চেষ্টা করবেন এই কোড লক সিকিউরিটি ডিভাইস টিকে তৈরি করতে। একে চাইলে আরো উন্নত করাও সম্ভব। সবার উৎসাহ ও আগ্রহ দেখলে সামনে হয়ত এমনি আরো মজাদার কিছু নিয়ে হাজির হবো।

1 মন্তব্য

কমেন্ট করুন-