ডিসি টু ডিসি কনভার্টার (১ম পর্ব)- প্রাথমিক আলোচনা

ইলেকট্রনিক্সের কোনো প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করার সময় সবথেকে বড় যে সমস্যাগুলো দেখা দেয়, তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে সার্কিটে দরকার মতো ভোল্টেজের ব্যবস্থা করা। ভোল্টেজ বা পাওয়ার সোর্স হিসেবে সাধারণত ব্যাটারী, সোলারসেল, ডিজেল জেনারটর, উইন্ড টারবাইন, বা সরাসরি গ্রীড পাওয়ার ব্যবহার করা হয়। পাওয়ার গ্রীড বা জেনারেটর ভোল্টেজকে ট্রান্সফর্মার দিয়ে কমিয়ে রেক্টিফায়র দিয়ে ডিসি করা যায়, যেখানে ট্রান্সফর্মার সাধারণত 3V/6V/9V/12V… Continue reading ডিসি টু ডিসি কনভার্টার (১ম পর্ব)- প্রাথমিক আলোচনা

প্রজেক্ট-১ : ডার্ক সেন্সর (লাইট সেন্সর)

ইলেক্ট্রনিক্সের মজার প্রজেক্ট ইলেক্ট্রনিক্সের মজার প্রজেক্ট নামে একটি ধারাবাহিক লেখা শুরু করতে চাচ্ছি। চেষ্টা করব ধারাবাহিক ভাবে ছোট খাট ইলেক্ট্রনিক্স কিছু প্রজেক্ট ধারাবাহিক ভাবে উপস্থাপন করতে। যাতে নবীন শিক্ষার্থীরা মজার সাথে ইলেক্ট্রনিক্স শিখতে পারে। চাইলে বিভিন্ন বিজ্ঞান মেলায়/ বন্ধু মহলে এই প্রজেক্টগুলা উপস্থাপন করে দর্শকদের বাহবা পেতে পার (#মূলত ছোটদের টার্গেট করার কারনে তুমি বা… Continue reading প্রজেক্ট-১ : ডার্ক সেন্সর (লাইট সেন্সর)

ক্যাপাসিটর এর বিভিন্ন নাম্বার কোড ও তার অর্থ

ক্যাপাসিটর এর বিভিন্ন নাম্বার কোড ও তার অর্থ

ইলেকট্রক্স নিয়ে কাজ করতে গেলে ছোট বড় নানান ধরনের ক্যাপাসিটর চোখে পড়ে। ছোট মুসুর দানার মত দেখতে যেমন আছে তেমন ঢাউস আকারের ব্যাটারির মত বড় ক্যাপাসিটর ও দেখতে পাওয়া যায়। এ নিয়ে ছোট্ট মজার অভিজ্ঞতা বলতে পারি। ২০০৯ সালের দিকে ছোট পিএফ ক্যাপাসিটর কিনতে গেছি মারকেটে। ট্রান্সমিটার বানানোর জন্য এই এটি দরকার ছিল। তো দোকানি… Continue reading ক্যাপাসিটর এর বিভিন্ন নাম্বার কোড ও তার অর্থ