প্রজেক্ট

লোডশেডিং কে বুড়ো আংগুল দেখিয়ে নিজেই বানিয়ে নিন মিনি আইপিএস!!

লোডশেডিং এখন আমাদের জীবনেরই একটা অংশ হয়ে দাড়িয়েছে। একটা সময় ছিলো যখন বিদ্যুৎ চলে গেলে উফ করে উঠতাম। আর এখন মনেহয় এতো নিত্যদিনে ঘটনা, নতুন আর কী! আকাশে বিদ্যুৎ চমকানো সহ ঝড়ো হাওয়া বইতে থাকলে, কালো মেঘের আনাগোনা দেখলে অথবা বৃষ্টি পড়তে শুরু করলে শুরু হয় লোডশেডিং। ইদানীং তো মনে হয়, আরে বিদ্যুৎ আসেতো চলে যাবার জন্যই! এখনই চলে গেল, তাহলে পরে বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজনের যখন মর্জি, তখন চলে আসবে। লোডশেডিং যেন একেবারেই যেন স্বাভাবিক।

তবে আপনার কাছে যদি যথেষ্ট টাকা পায়সা থাকে তাহলে লোডশেডিং আপনার জন্য কোন মাথা ব্যাথার কারন হবে না। আপনি চাইলেই জেনারেটর কিনতে পারেন। তেল কিনে ঘন্টার পর ঘন্টা ইঞ্জিন-জেনারেটর কন্ট্রোল সিস্টেম এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজনকে বুড়ো আংগুল দেখিয়ে দিতে পারেন, লোডশেডিং এর পিন্ডি চটকাতে পারেন। আবার ছোটবড় আইপিএস  কিনে লোডশেডিংয়ের যন্ত্রনা থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি পেতে পারেন। তবে যারা উপরের দু'টাই করতে পারছেন না তারা হয় ইমার্জেন্সি চার্জার লাইট ও ফ্যান কিনেন অথবা খাতা দিয়ে বাতাস খান আর মোবাইলের টর্চ জ্বালিয়ে লোডশডিংয়ের সময়টুকু সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন!

আমার বর্তমান লোডশেডিং এর সিডিউল অনুযায়ী ১ ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকে আর ৪ ঘন্টা থাকেনা। এই রেশিও তে বাজারের রেডিমেড চার্জারগুলি ঠিকমত চার্জ হবার সুযোগ পায় না, আবার এই চার্জার ফ্যান ও লাইটগুলির দাম অনেক। এবং খুবই নিম্নমানের চাইনিজ যন্ত্রাংশ দিয়ে তৈরি বিধায়, এগুলি তেমন একটা টিকেনা।

তবে আপনার যদি নূন্যতম ইচ্ছাও থাকে তাহলে আপনি একটি মিনি আইপিএস বানিয়ে ফেলতে পারেন নিজ হাতেই। খুবই কম খরচে। খুবই অল্প সময়ে (২-৩ ঘন্টায়) চার্জ হয়ে যাবে আবার বেশী সময় আপনাকে আলো ও বাতাস দিবে। দরকার নেই যে আপনার এই ইলেকট্রনিক্স কাজে পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। অথবা আপনি কোনদিনও এইসব ইলেকট্রনিক্স পার্টস চোখেও দেখেননি, আপনার দ্বারাও সম্ভব এই মিনি আই পি এস বানানো। আপনার শুধু দরকার এইটা বানানোর আন্তরিক ইচ্ছা।

সংক্ষেপে মিনি আইপিএস সার্কিট ডায়াগ্রাম

এই মিনি আইপিএস বানাতে আপনার যা লাগবে

আর মিনি আইপিএস এর চার্জার বানাতে যা লাগবে

কোথায় পাবেন সকল পার্টস

এই প্রজেক্টের সব পার্টস আপনি এই ছবির মার্কেটে পাবেন। সাথে দোকানের বিজনেস কার্ডের স্ক্যান কপিও দিয়ে দিলাম।

নোটঃ এই প্রজেক্টের কানেক্টিং তারগুলা একটু মোটা ধরনের হতে হবে। আমি আমার প্রজেক্টে মনিটর বা সিপিইউর এসি তারের ভিতরের ৩ টি তার ইউজ করেছি। আপনাদের বাসায়ও এমন এসি পাওয়ার কর্ড অবশ্যই থাকবে।

লোডশেডিং এর এই প্রজেক্ট টির ডিটেইলসে যাবার আগে এই ডিডিওটা দেখুন

নিচে মিনি-আইপিএস এর যন্ত্রাংশ সংযোগ পদ্বতি ধাপে ধাপে ছবি সহ দেখানো হলো

  1. বক্সের বাইরের স্ক্রু লাগানোর ছিদ্র, ট্রান্সফরমার ও ব্যাটারী আটকানোর ক্লাম এর মাপ অনুযায়ী ক্যাসিংয়ে ছিদ্র করে ফেলুন। ব্যাটারী আর ট্রান্সফরমার ও ব্যাটারী ক্লামের ছিদ্র একটু মোটা করুন, আর ক্যাসিং আটকানোর ছিদ্র একটু চিকন।
  2. এসি সকেট ও এসি সুইচ সংযোগ করে ফেলুন। সুইচের দুটি ফাকা পোর্টে ২২০ ভোল্ট এসি পাবেন
  3. এবার ট্রান্সফরমার এর এসি দুটির তার কানেক্ট করে ফেলুন।
  4. এবার ছবির অনুযায়ী ২ টা ডায়োড আর একটা ক্যাপাসিটরের কানেকশন করে ফেলুন। ক্যাপাসিটরের নেগেটিভ পয়েন্ট টি ক্যাসিংয়ের সাথে ঝালাই করে লাগিয়ে দিন। ক্যাপাসিটরের দুই লেগে ১৫ ভোল্ট ডিসি পাবেন।
  5. ক্যাপাসিটরের পজেটিভ এ একটা ডায়োডের নেগেটিভ লেগ জয়েন্ট দিয়ে পজেটিভ লেগ এ দুটি তার সংসুক্ত করুন। একটি তার চলে যাবে ব্যাটারির পজেটিভ এ, আরেকটি তার যাবে ফ্যান ও লাইটের সুইচের মাঝের পোর্টে। ব্যাটারির নেগেটিভ তারটি আসবে ক্যাসিং এর বডি থেকে। ব্যাটারীর পজেটিভ ও নেগেটিভ অংশে ব্যাটারী ক্লিপ লাগাবেন ঝালাই করে।


  6. ফ্যান ও লাইটের সুইচের উপরের ফাকা পোর্টে ২ টি ১ কিলো ওহম মানের রেজিস্টর সংযুক্ত করুন। এই দুইটি রেজিস্টর এর অপর প্রান্তে দুইটি LED বসবে। LED র নেগেটিভ থাকবে বডির সাথে সংযুক্ত। দুইটি সুইচের উপরের পয়েন্ট থেকে দুটি তার RCA Jack এর মিডল পয়েন্টে কানেক্ট করবেন।
  7. এখন আপনি যদি লাইট সার্কিট টি বক্সের ভিতরে ফিট করতে চান তাহলে ছবি অনুযায়ী সার্কিটের নেগেটিভ বক্সের বডির সাথে কানক্ট করুন। আর পজেটিভ অংশটি কানেক্ট করুন লাইট সুইচের পোর্ট থেকে। আর এই সার্কিটের আউটপুট কানেক্ট করুন একটা CFL light এর ফিলামেন্ট অংশে। তবে এই সার্কিট ফিট করার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যাতে সার্কিটের হিটসিংকের সাথে বডির সংস্পর্শ না আসে। আমি AC Cord এর ফেলে দেওয়া কাভার এখানে ফিট করে দিয়েছি সুপার গ্লু দিয়ে।

  8. এবার ডায়োড আর সুইচের মাঝখানের তারটি কেটে ফেলুন। এই তারের দুই মাথায় একটি রীলে কানেক্ট করুন। রীলে'র পজেটিভ আর নেগেটিভ ক্যাপাসিটরের পজেটিভ নেগেটিভে যাবে। রীলে'র নেগেটিভ পজেটিভে একটা ডায়োড কানেক্ট করতে হবে। ডায়োডের পোলারিটি অনুযায়ি রীলে'র পজেটিভ নেগেটিভ নির্ধারন করবেন।




  9. এবার আপনার আপনার চার্জার রেডি। আপনি এখন একটা RCA Jack থেকে DC Fan আর একটা RCA Jack থেকে DC light এর ভোল্টেজ পাবেন। হলুদ তারের কানেকশনের অপর প্রান্ত থেকে সরাসরি ফিলামেন্ট জ্বালাতে পারবেন।

আপনার এলাকায় এসি ভোল্টেজ যদি লো মাণের (১৫০-১৮০) হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে ১৮ ভোল্টের ট্টান্সফরমার লাগাতে হবে। সেক্ষেত্রে এসি তারের একটা ডায়োড কমে যাবে অথবা ৪ টা ডায়োড দিয়ে ব্রিজ কানেকশন করতে হবে।

Related Post

এবার আমাদের চার্জার টেষ্ট করার পালা। ভিডিওটা দেখুন।

এই ধরনের আইপিএস বাজারে কিনতে পাওয়া যায় ৩০০০-৩৫০০ টাকায়। ফ্যান ছাড়া এবং সেখানে নষ্ট CFL ফিলামেন্ট বা এনার্জি বাতি জ্বালানোর কোন উপায় থাকে না। শুধু DC light জ্বালানোর উপায় থাকে। এবং বাজারের চার্জারে পুরাতন নষ্ট ব্যাটারি ও অতি নিম্ন মানের ট্রান্সফরমার ইউজ করা হয়। যা বেশদিন টিকে না। আপনাকে ওরা ওয়ারেন্টি দিবে তবে ঐ নষ্ট ব্যাটারী ও নিম্নমানের ট্রান্সফরমার দিয়ে সার্ভিস দিবে।

পরিশিষ্ঠঃ

এই প্রজেক্ট টি খুবই সহজ। যে কোন বয়সের যে কেউ এই মিনি আইপিএস বানিয়ে ফেলতে পারেন। কোনো ধরনের অসুবিধা ছাড়াই।

প্রথমবার সোল্ডারিং আয়রন, লিড, মাল্টিমিটার, ড্রিল মেশিন কিনার পরে প্রজেক্ট টি আর্থিকভাবে তেমন লাভবান হবে না। তবে একের অধিক আইপিএস বানাতে গিয়ে এই প্রাথমিক খরচটা আর হবে না। সেক্ষেত্রে আপনার পরিশ্রম বৃথা যাবে না। প্রতিটা ইউনিটে বাজার মূল্যের ৪০০-৫০০ টাকা লাভ থাকবেই। আর ব্যাপারটা যদি স্রেফ শখের বশেই করবার ইচ্ছা পোষন করেন, তাহলে লাভের কথা নাই বা বললাম।

(আমার বাংলা গদ্য ভালো না। ভাষার ব্যাবহারে কোন কারুকার্য নেই। তাই বাক্য গঠনে ভুল হওয়া স্বাভাবিক। এমনটা হলে ক্ষমা করে দিবেন প্লিজ। হোম মেইড ভিডিও দুটি দেখে হাসির উদ্রেক হইলেও হইতে পারে)

ইমেইল : zahidul.hasan@hotmail.com

ইলেক্ট্রনিক্সের টুকিটাকি নিয়ে ফেসবুকে একটা গ্রুপ খুলেছি মজার হবি ইলেকট্রনিক্স নামে।
সেখানে জয়েন করতে পারেন। নিজেদের জিজ্ঞাসা, পরামর্শ, সমস্যা, অভিজ্ঞতা শেয়ারে খুব ভালো হবে।

এই লেখাটি পূর্বে জাহিদুল হাসান ভাইয়ের বাংলা ব্লগে প্রকাশিত হয়েছে। পোস্টের লিংকঃ http://www.somewhereinblog.net/blog/mahamanob/29588111

**লেখায় উল্লিখিত বিভিন্ন কম্পনেন্টের মূল্যমাণ বাজার ভেদে ভিন্ন হতে পারে

This post was last modified on April 28, 2017 2:19 pm

কমেন্ট দেখুন

  • ব্যাপার টা আসলেই এত সহজ না,

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

    • bujte parne onnek sohoj

      Cancel reply

      Leave a Reply

      Your email address will not be published. Required fields are marked*

    • শুধু বেসিক জিনিষ টা জানলেই সম্ভব। ওই ব্লগ পড়ে অনেকেই বানিয়েছিলেন যাদের খুব সামান্য ইলেক্ট্রনিক্স নলেজ ছিলো।

      Cancel reply

      Leave a Reply

      Your email address will not be published. Required fields are marked*

    • এটা তো খেলনা ইনভার্টার,আসল ইনভার্টার বানানো এত সহজ না,এইটা বোঝাতে চাইলাম

      Cancel reply

      Leave a Reply

      Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • Circuit diagram ta r o clear hole valo hoto...Relay er connection ta bujhi nai

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • Thanks a lot

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • Capacitor টা কেনো লাগানো হচ্ছে একটু খুলে বলবেন please. না লাগালে কি হতে পারে?

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • আমার একটি 6/9volt এর adapter আছে. সেটা তে তো 25v 2200mfd capacitor আছে. তাহলে কি আমি capacitor টি লাগানো অবস্থায় 6volt ব্যাটারি টি চার্জ দিতে পারবো?

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • vai, kicu kicu step clear hoite parlam na. request hoilo j, connection dewa soho ekta video jodi den. bistarito ta jeivabe bola hoise seivabe boila boila jodi connection dewata o dekhaiya diten taile may be r o onk sohoj lagto. jodi upload na o koren taile amake ekta connection and soldering soho video "rayhan.rahel@gmail.com" ei mail e pataiya diyen. ami onk kritoggo thakbo. really. thnk u.

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • এখন আটো কাট সারকিট আছে সেই বিসয়্ব কিছু বলা না

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • Nosto cfl bulb er filament jalanur jonno laganu circuit tar nam ki? Bazere ki name pabo???

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • আমি প্রকৌশলী মো: মিজানুর রহমান । প্রাক্টিক্যাল জ্ঞান আমার কমিটির । আপনার প্রজেক্ট গুলি আমার খুব ভাল লেগেছে ।

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

  • fan golar dam koto

    Cancel reply

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked*

    • 500

      Cancel reply

      Leave a Reply

      Your email address will not be published. Required fields are marked*

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked*

Share
Published by

Recent Posts

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হ্যান্ড ওয়াশ চ্যালেঞ্জ - হ্যান্ড ওয়াশ টাইমার তৈরি করুন সহজেই

করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা নিয়ে আপনাদের বলার মত কিছু নেই। এটি যেকোনো জায়গায় থাকতে পারে এবং…

March 24, 2020

আরডুইনো দিয়ে স্ক্রলিং এলইডি মেসেজ ডিসপ্লে (ভিডিও সহ)

সকল বন্ধুদের স্বাগতম আমার আরডুইনো দিয়ে স্ক্রলিং এলইডি মেসেজ ডিসপ্লে প্রজেক্টে। এটা খুবই মজার একটি প্রজেক্ট।…

November 28, 2017

ভোঁতা ড্রিল বিট ধারালো করে নিন সহজেই (ভিডিও টিউটোরিয়াল)

ড্রিল বিট এর ধার দ্রুত ক্ষয়ে যায়। পিসিবি ড্রিল মেশিন গুলোতে ব্যবহৃত বিট গুলোকে চাইলে…

June 24, 2017

পাওয়ার ট্রান্সফরমার তৈরী করবার হিসাব নিকাশ (ক্যালকুলেটর সহ)

ভূমিকা পাওয়ার ট্রান্সফরমার তৈরী করতে চান অনেকেই। এই লেখার মাধ্যমে এটি তৈরী করবার প্রয়োজনীয় ক্যালকুলেশন…

June 16, 2017

তৈরি করুন সহজ কোড লক সিকিউরিটি সুইচ

কোড লক সিকিউরিটি সুইচ আমরা প্রায়ই মুভিতে দেখি। যেখানে নির্দিষ্ট কোড ঢুকানোর পর কোন সুইচ…

June 12, 2017

মাল্টিমিটার দিয়ে ট্রানজিস্টর এর বেজ, ইমিটার ও কালেক্টর লেগ বের করা

মাল্টিমিটার দিয়ে কিভাবে কোনো ট্রানজিস্টর এর বেজ, ইমিটার ও কালেক্টর (Base, Emitter & Collector) বের…

June 2, 2017